গরম এই ঘটিগরম..

হেলালুর রহমান জুয়েল, চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি

0 32

সকালে ব্যাটারিচালিত অটোভ্যান চালান আর বিকেল থেকে বিক্রি করেন ঘটিগরম চিড়া-চানাচুর। অটোভ্যান চালিয়ে আর হকারী করে প্রতিদিন তাঁর আয় ৫/৬ শত টাকা। এতেই সংসারে স্বচ্ছলতা।

advertisement

advertisement

জীবিকার এমন পথ বেছে নিয়েছেন পাবনার চাটমোহর উপজেলার বিলচলন ইউনিয়নের কুমারগাড়া গ্রামের আজিবর মোল্লা (৩৫)। এই আয় দিয়ে তাঁর ভালোই চলছে বলে জানালেন দুই পুত্র সন্তানের জনক আজিবর।

বৃহস্পতিবার (২ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় চাটমোহর পৌর শহরের ছোট শালিখা এলাকায় কথা হয় আজিবর মোল্লার সাথে। জানালেন,সকালে অটোভ্যান চালাই। বিকেলে অটোভ্যান চালাতে ভালো লাগে না। তাই স্ত্রীর সহায়তায় বের হই ভাজা চিড়া আর চানাচুর নিয়ে। টিনের ড্রামের ভেতর টিনের কৌটায় জ¦ালানো কয়লা দিয়ে চিড়া আর চানাচুরের মধ্যে বসিয়ে দেই। এতে সারাক্ষণ গরম থাকে চিড়া-চানাচুর। এটাকেই বলা হয় ঘটিগরম।

advertisement

আজিবর বললেন,শীতের সন্ধ্যায় ঘটিগরমের ব্যাপক চাহিদা। রাত ৮টার মধ্যে সব চিড়া-চানাচুর শেষ হয়ে যায়। এ থেকে প্রতিদিন ৩ শত টাকা লাভ হয়। সন্ধ্যা থেকে রাত ৮/৯টা পর্যন্ত চাটমোহর পৌর শহরের বিভিন্ন স্থানে ‘এই ঘটিগরম .. ঘটিগরম’ বলে হাঁক ছেড়ে বিক্রি করা হয়। সকল বয়সী মানুষই এই চানাচুর আর চিড়া কিনে খায়।

আজিবর মোল্লা জানালেন,শীতের ৩/৪ মাস এই ব্যবসা ভালোই হয়। তিনি জানালেন ২ ছেলে স্কুলে লেখাপড়া করছে। তাদেরকে বড় করতে হবে। তারা আমার মতো যেন দিনমজুর না হয়।

ঘটিগরম ক্রেতা রায়হান আলী,বাউল মন্ডল,আলমগীর কবিরসহ অন্যরা জানালেন,তারা প্রতিদিনই আজিবরের কাছ থেকে ৫ টাকা করে গরম চিড়া আর চানাচুর কেনেন। সুস্বাদু ও লোভনীয় এই খাদ্য।

এই বিভাগের আরো খবর

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.