রাজিবপুরে শিক্ষককে অহেতুক মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ

আতাউর রহমান, রাজিবপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি

0 11

কুড়িগ্রামের চর রাজিবপুর উপজেলার বড়াইডাঙ্গী গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত এক স্কুল শিক্ষক ভূমিদস্যুর মামলার কারণে বারবার হয়রানির শিকার হচ্ছে। জমি জবর দখলেল চেষ্টা,মামলা দিয়ে হয়রানিসহ মেরে ফেলার হুমকি দামকি দিয়ে যাচ্ছে।এমতাবস্থায় তিনি মানুষিক ভাবে ভেঙ্গে পড়েছেন।

অভিযোগে জানা গেছে, মো:আব্দুল হাকিম অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক সাদাকাত হোসেন উচ্চ বিদ্যালয়। পিতা মৃত জনাব অলী জন্মস্থান চর সাজাই,কোদালকাটি। ভিটেমাটি নদীগর্ভে বিলিন হওয়ায় বর্তমান উপজেলার বড়াইডাঙ্গী গ্রামে বসবাসরত।

জন্মস্থান উপজেলার কোদালকাটি হওয়ার সেখানে বসবাসকালীন সময়ে আজ থেকে প্রায় ৩০ বছর আগে চর সাজাই মৌজায় ,জেল নং-২৯,খতিয়ান নং-১৫৬,দাগ নং-২০৫৯ ও ২০৫৮ দাগে ২.৭৬একর জমির মধ্যে ১.৫৫একর জমি গত ১২/১০/৮৯ইং সালে ১০৪৭ নম্বর দলিল মুলে ৩১ শতক এবং ৭/১২/১৯৯২ সালে ১৫৭১ দলিল নম্বর মুলে ১.২৪ একর জমি ক্রয় করে ভোগ দখল করে আসছেন। যা বর্তমান বর্গা দিয়েছেন। বর্গাচাষী ওসমান ও আবুল হাশেম চাষাবাদ করে আসছে। জমির খাজনা,খারিজ ও ডিসিআর সহ সকল কাগজপত্র সঠিক।

কিন্তু বিবাদী নুরনবী পিতা মৃত আজিত মোল্লাহ গং প্রথমে ১৯/০৩/২০২০ইং সালে কোদাল কাটি ইউনিয়ন ভূমি অফিসে ৬২ নং স্বারক মুলে তৎকালীন কোদাল কাটি ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা মো.আব্দুর রহমান অর্থের বিনিময়ে আব্দুল হাকিম মাষ্টারের জমির বিরুদ্ধে সরেজমিনে প্রতিবেদন দেন।

এই বিভাগের আরো খবর

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.