সোনারগাঁয়ে ১২ কেজির আশ্চর্য রকম ওজনের মিষ্টি আলুর সন্ধ্যান

ফজলে রাব্বী সোহেল, সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি

0 40

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে জেলায় এক কৃষকের জমিতে ১২ কেজি ওজনের আশ্চর্য রকমের বড় মিষ্টি আলুর ফলন হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

এদেশের পরিবেশে জমিতে সাধারণত আধা কেজি থেকে এক কেজি ওজনের মিষ্টি আলুর ফলন হলেও আলমের জমিতে ১২ কেজি ওজনের আলুর ফলন দেখে এলাকায় সাধারণ মানুষের মধ্যে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে সোনারগাঁ উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের ভাটিবন্দর গ্রামে।

সোনারগাঁ উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানাযায়, উপজেলার ভাটিবন্দর এলাকার সৌখিন কৃষক সৈয়দ আলম তার দশ শতাংশ জমিতে কমলা সুন্দরী জাতের মিষ্টি আলুর লতা রোপন করেন। আলুর লতা রোপনের ৭/৮ মাসের ব্যবধানে তার রোপন করা জমিতে প্রায় ১২ কেজি ওজনের একটি মিষ্টি আলুর ফলন হয়েছে। এঘটনায় এলাকায় বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক মহিলা সদস্য ও মানবাধীকার নেত্রী মোসাম্মৎ জাহানারা বেগম জানান, সৈয়দ আলম আমার প্রতিবেশী কৃষক। একসময় তিনি কৃষি কাজ করলেও বিদেশে প্রবাশ জীবন কাটানো পর আর কৃষি কাজ করেন না। মাঝে মাঝে সখের বসে কিছু চাষ বাস করে থাকেন। তার জমিতে এতো বড় মিষ্টি আলু দেখে আমরা আশ্চর্য হয়েছি। কারন এতো বড় আলু আমরা আর কোন দিন দেখিনি।

উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নে কর্মরত উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মোসাম্মৎ জেসমিন আক্তার জানান, দুই বছর পূর্বে অফিস থেকে আমি কমলা সুন্দরী নামে নতুন জাতের এই আলুর লতা পেয়েছি। তার মধ্যে থেকে সৌখিন কৃষকের জমিতে বেলে দোয়শ মাটি থাকায় আশানুরোপ ফলন হয়েছে।

উপজেলার সোনারগাঁও পৌরসভা এলাকায় কর্মরত উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মোহাম্মদ তোফায়েল আহাম্মেদ জানান, গ্রিনীজ বুক অফ ওয়াল্ডের তালিকায় ৯ কেজি ওজনের একটি আলুর তালিকা রয়েছে। আর সোনারগাঁয়ের সৌখিন কৃষকের জমির মিষ্টি আলুর ওজন হ্ছে প্রায় ১২ কেজি। এই আলুর ওজনটি গ্রিনীজ বুকের তালিকায় অন্তরভুক্ত হওয়ার মতো।

সোনারগাঁ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মনিরা আক্তার জানান, বাংলাদেশ কৃষি গবেষনা ইনিষ্টিটিউট থেকে আমরা আলুর যে লতা পেয়েছি তার থেকে দু’ তিনটি আলু বড় হয়েছে। এটি আসলে এক্সসেপশনাল।

এই বিভাগের আরো খবর

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.