যুক্তরাষ্ট্রের কাছে ভ্যাকসিনের তথ্য দিতে রাজি রাশিয়া

ডেস্ক রিপোর্ট

0 13

যুক্তরাষ্ট্রের প্রধান সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ডা. অ্যান্থনি ফউসির কাছে করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন স্পুটনিক-৫’র বিস্তারিত তথ্য দিতে প্রস্তুত রাশিয়া। রাশিয়ান ডিরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট ফান্ডের (আরডিআইএফ) প্রধান নির্বাহী কিরিল দিমিত্রিয়েভ মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন’কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এ তথ্য জানিয়েছ

সম্প্রতি রাশিয়ার তৈরি করোনা ভ্যাকসিন স্পুটনিক-৫ সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য না থাকায় এর কার্যকারিতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব অ্যালার্জি অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেসের পরিচালক ডা. ফউসি।

এ বিষয়ে প্রশ্ন করলে দিমিত্রিয়েভ বলেন, ‘তিনি যদি চান, আমরা এটি (ভ্যাকসিন) সম্পর্কে সব কিছু তাকে খুশি মনে ব্যাখ্যা করব। আমার মনে হয়, ভ্যাকসিনটি কীভাবে কাজ করে সে বিষয়ে তিনি গবেষণা করলে সেটাই সবচেয়ে ভালো হয়।’

রুশ এ কর্মকর্তা আশাপ্রকাশ করেন, যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার মধ্যে বিদ্যমান দেয়াল টপকাতে পারা মানুষদের মধ্যে অন্যতম হতে পারেন ডা. ফউসি।

কিরিল দিমিত্রিয়েভ বলেন, ‘সেক্ষেত্রে ডা. ফউসিকে রাজনৈতিক ব্যক্তি হলে চলবে না, এর বদলে ভ্যাকসিনের দিকেই বেশি মনোযোগী হতে হবে।’ তবে বিষয়টি অনেক বেশি আদর্শবাদী বলেও স্বীকার করেছেন আরডিআইএফ প্রধান।

গত ১১ আগস্ট বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে করোনা ভ্যাকসিনের অনুমোদন দেয় রাশিয়া। ১৯৫৭ সালে বিশ্বের প্রথম কৃত্রিম উপগ্রহ পাঠিয়েছিল তৎকালীন সোভিয়েত ইউনিয়ন। সেটির নামের সঙ্গে মিল রেখে নতুন ভ্যাকসিনের নামকরণ করা হয়েছে ‘স্পুটনিক-৫’। এটি বাজারজাতকরণের দায়িত্বে রয়েছে আরডিআইএফ।

তবে সমালোচকদের দাবি, রাজনৈতিক চাপের কারণে রুশ ভ্যাকসিন তৈরিতে অনেক ঝুঁকির বিষয় বাদ দেয়া হয়েছে। রাশিয়াকে বিশ্বের বৈজ্ঞানিক গবেষণার কেন্দ্র হিসেবে উপস্থাপনে গবেষকদের ওপর দ্রুত ভ্যাকসিন তৈরির চাপ ছিল বলে দাবি অনেকের।

স্পুটনিক-৫’র এখনও তৃতীয় ধাপের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে পাস করা বাকি। এ কারণে ভ্যাকসিনটির সুরক্ষা ও কার্যকারিতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিভিন্ন দেশের বিশেষজ্ঞরা।

এই বিভাগের আরো খবর
Loading...