ডোমারে মা-বাবার উপর অভিমান করে ৩য় শ্রেনী ছাত্রের আত্মহত্যা

হরিদাস রায়, ডোমার (নীলফামারী) প্রতিনিধি

0 19

জেলার ডোমারে বোনের সাথে দুলাভাইর বাড়ীতে যেতে না দেওয়ায় মা-বাবার উপর অভিমান করে ইয়াসিন আলী(১০) নামে তয় শ্রেনীর এক ছাত্র গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

মঙ্গলবার রাত দশটার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে নিহত ইয়াসিনের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ। ইয়াসিন উপজেলার গোমনাতি ইউনিয়নের আমবাড়ী মাঝাপাড়া গ্রামের মোঃ আব্দুর রউফের ছেলে ও আমবাড়ী মাঝাপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৩য় শ্রেনীর ছাত্র ছিল।

নিহত ইয়াসিনের ফুফাতো ভাই বাদল জানান, গত এক সপ্তাহ আগে ইয়াসিনের একমাত্র বোন রিয়া মনির বিয়ে হয় পাশ্ববর্তী হলহলিয়া গ্রামে। বোন ও বোন জামাই মঙ্গলবার বিকালে তার শ্বশুর বাড়ীতে চলে যাওয়ার কথা থাকায় ইয়াসিনও বায়না ধরে সেও বোনের বাসায় যাবে। বৃষ্টি থাকায় তার বাবা রউফ ও মা রুমি বেগম তাকে বোনের সাথে যেতে দেয়নি। সন্ধায় বোন মনি চলে যাওয়ার পর ইয়াসিন সকলের অগোচড়ে তার শয়ন ঘড়ের আড়ার সাথে ওড়না ও দড়ি গলায় পেচিয়ে আত্মহত্যা করে।

মা-বাবা তাকে দেখতে না পেয়ে ঘড়ে প্রবেশ করে তার ঝুলন্ত দেহ দেখতে পেয়ে পরিবারের সহযোগীতায় তাকে নামিয়ে ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত্যু ঘোষনা করেন।

থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মোস্তাফিজার রহমান মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, লাশ ময়না তদন্তের জন্য বুধবার সকালে জেলার মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় ইউডি মামলা হয়েছে বলেও তিনি জানিয়েছেন।

এই বিভাগের আরো খবর
Loading...